রৌদ্র দুপুর
লিখেছেন কুয়াশা, এপ্রিল ১৮, ২০১৫ ১:২৮ অপরাহ্ণ

20140427115534
কোন এক বৈশাখী রৌদ্রদুপুর
পরিশ্রান্ত চারপাশ,
ধেয়ে আসে স্বকারণ ক্লান্তি।
নিমগ্ন আঁখিদ্বয়ে অতল নিদ্রায় হারিয়ে যাবার আকাংখা!

কখনো সেই তাপদাহ দুপুরে
কাক ডেকে যায় অহর্ণিশ,
তখনই হয়তো অজানা শংকায়
শংকিত হয় কৃষক বধু,
অতিথী পাখির ডাক শুনে আনন্দের
কোলাহল জেগে ওঠে।

তবে কী জীবন যাপন এইসব
ক্ষুদ্র সুখ, মিষ্টি দুখেরই নামান্তর!
দুর থেকে ভেসে আসা রাখালিয়া সুর
কখনোবা অসময়ে ঘুম পাড়িয়ে দেয়!

তপ্ত দুপুরে চাটায় নিয়ে গাছতলায়,
মাঠে কোন এক ছায়ায়,
বৈশাখী বাতাস এসে শরীর জুড়িয়ে দিয়ে যায়
গাঁয়ের সরল বধু সব
চুলে বিলি কাটে একে অপরের!
সুখ দুঃখ হাসি কান্নার গল্প শুনায়
সবাই সবাইকে!

ফিরিয়ে নাওনা আমায় সেথায়!
আমি বনে বাদাড়ে ছুটে
দস্যি মেয়েটি হতে চাই,
রোদ্রে পুড়ে তামাটে বানাতে চাই শরীর!
বৈশাখী ঝড়ে আম কুড়ানোর প্রতিযোগীতায়
নামবো আমি, আর পাশ থেকে
চাচী ভাবীদের মুখে শুনতে চাই মিষ্টি বকুনী
ফিরিয়ে নাও আমায়,
পুকুরের স্বচ্ছ জলে হাঁস দের সাঁতার যেখানে,
যেখান্ন নবান্নের ধুম পড়ে যায়!

যেখানে খুব সুশীতল বাবার কবর!
সেথায় নিয়ে চলো আমায়,
আমি ফিরতে চাই!

পোস্টটি ৫৫৭ বার পঠিত
 ১ টি লাইক
১ টি মন্তব্য
একটি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. ”আমি ফিরতে চাই”
    মন ছুঁয়ে গেলো!

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.