নবনীর সুখ
লিখেছেন শুকনোপাতা, আগস্ট ২৭, ২০১৬ ১০:১১ পূর্বাহ্ণ
11387150-girl-beside-window-on-on-grunge-background

নবনী আজ অনেক দিন পর মুখ তুলেছে
গবাক্ষের সুনীলে চোখ মেলেছে
কিন্তু সকালের তীব্র আলোর ভীড়েও ঝাপসা চোখে কিছুই দেখতে পায় না!
সবই শুধু আধো আলোয় ধূসর ঠ্যাকে। 
মাঝে মাঝে হাপাতে হাপাতে নবনী
আয়না খুঁজে ফিরে! 
ইচ্ছে হয় নিজের দর্শন নিতে কিন্তু 
হায়! কাকে দেখে সে? 
এত্তো অচেনা ঠ্যাকে নিজেকে কখনো
জানা ছিলো না বটে। 


একূল অকূল আকূল চোখে খুঁজে বেড়ায় 
যদি কাউকে দেখা যায়,যারে চেনা যায়
কিন্তু কেবল দূউউরে আকাশে কিছু তারা
ক্ষীন ছায়া দেখিয়ে যায়। 
নবনী কাঁদতে ও ভুলে যায় নাকি অশ্রু শুকিয়ে যায়! 
কেবল শূণ্য দৃষ্টিতে ইথারে ইথারে নিজের অস্তিত্ব খুঁজে বেড়ায়।


ডানা ভাঙা পাখির মতোই যখন লড়তে লড়তে নিস্তেজ হয়ে যায়, তখন কেউ না কেউ দয়াপরবশ সুধায়, কেমন আছো নবনী? 
সাত সমুদ্দের সমান দীর্ঘশ্বাস আটকে সে
ঠোঁটে ক্ষীন হাসি ফুটায়। 
আহহ,কেউ তো সুধালো একটিবার! ধন্য হই বটে
তবে প্রশ্নটা ঠিক কাছাকাছি যেয়েও ভুল হয়ে গেলো যে। 
এখন আর কেমন আছি সে প্রশ্নটা বেমানান
বেচে আছি নাকি মরে গিয়ে বেচেছি তা জানতে চাওয়াই কল্যাণ।
নবনী এখন সকাল-বিকেল রোজ মরে যায় ক’বার,
মৃত হৃদয়ের দাফন হয় না,তাইতো লোকে বুঝে না একটি বার। 

নবনী এখন বুঝতে শিখেছে,তার দিন হারিয়েছে স্রোতে
কোন সমুদ্দরে জমেছে গিয়ে খুঁজে পাওয়ার আশা মিছে
লোকের বুঝায় আর কি আসে যায়,শুধু নিজের জন্যে সুধায়,
বারবার এভাবে না মরে,একবারে কবে মরা যায়?
দেহ থেকে কবে আত্না ছুটি নেবে,স্বস্তি পাবে লোকে খুব
পৃথিবী বুকে ইতি টানবে আরেকটা ডানা ভাঙ্গা পাখির দুঃখ।

 

পোস্টটি ৬১৫ বার পঠিত
 ২ টি লাইক
৫ টি মন্তব্য
৫ টি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. কিন্তু নবনীর এই অবস্থার কারন কী ?

  2. ভালো থাকুক নবনী….. আবার হেসে উঠুক উদিত সূর্যের মতো।

  3. একদিন- নবনী নিজেকে খুব করে ভালোবাসবে;
    সেইদিন- নিজেকে না ঠকিয়ে অধিকার আদায় করে নিবে।
    সেইদিন- আকাঙ্ক্ষিত সুন্দর হাসি-খুশি সকাল হবে,
    একদিন- বীভৎস অন্ধকার কালো রাত্রির পরিসমাপ্তি হবে।
    নবনীর জন্য ভালোবাসা। :)

  4. একেবারেই হারিয়ে যাক এ বিদ্ধস্ত সত্তা!
    নবজন্ম হোক এক হাস্যোজ্বল নবনীর।

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.