রোগ সারাবে ক্ষুদ্র ‘ইলেক্ট্রনিক ত্বক’
লিখেছেন প্রশান্ত চিত্ত, এপ্রিল ১২, ২০১৪ ৭:৫০ অপরাহ্ণ

ট্যাটুর মতোই একটি পাতলা ডিভাইস কল্পনা করুন, যা কিনা আপনার শরীর থেকে তথ্য সংগ্রহ করবে এবং সে অনুযায়ী ওষুধ প্রয়োগ করবে। অচিরেই ন্যানো প্রযুক্তিতে তৈরি এ ধরনের একটি ‘ইলেক্ট্রনিক স্কিন’ অর্থাৎ ইলেক্ট্রনিক ত্বক বা চামড়া বাজারে ছাড়া হবে যেটি নিজেই চিকিৎসকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হবে। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, মার্কিন গবেষকরা এমনই একটি ডিভাইস উদ্ভাবন করেছেন, যা মানুষের নড়াচড়া ও রোগনির্ণয় সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ এবং ত্বকে সে অনুযায়ী ওষুধ প্রয়োগ করতে সক্ষম। বিশেষজ্ঞ গবেষকরা দাবি করছেন, হাঁটাচলার সমস্যা যেমন পার্কিনসন্স বা এপিলেপসির মতো জটিল রোগে যারা ভুগছেন, এ প্রযুক্তি তাদের সহায়তা করবে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা আইএএনএস। যুক্তরাষ্ট্রের অস্টিনে অবস্থিত টেক্সাস ইউনিভার্সিটির মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার নানশু লু বলছিলেন, আঠালো একটি প্যাচের মধ্যে  ৪ সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্য, ২ সেন্টিমিটার প্রস্থ এবং মাত্র .০০০৩ মিলিমিটার পুরুত্ববিশিষ্ট অতি ক্ষুদ্র একটি ডিভাইস সংযোজিত থাকবে। ন্যানো প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে কয়েকটি স্তরে বিন্যস্ত সম্প্রসারণশীল উপাদানসমূহ, শরীরের তাপমাত্রা ও গতি নির্ণয়কারী সেন্সর, তথ্য সংগ্রহের জন্য প্রতিরোধক্ষমতাসম্পন্ন র‌্যাম, মাইক্রোহিটার ও বিভিন্ন ওষুধ দিয়ে মানুষের ত্বকের মতোই নরম ও স্থিতিস্থাপক করে তৈরি করা হয়েছে ডিভাইসটি। মেমোরি ডিভাইসটি সংযুক্ত করার বিষয়টি অভিনব বলে জানালেন অপর এক গবেষক। ‘নেইচার ন্যানোটেকনোলজি ১’ সাময়িকীতে গবেষণাপত্রটি ছাপা হয়েছে। ভবিষ্যতে অন্য যে কোন রোগের জন্যও এ ধরনের ডিভাইস তৈরি হবে, তাতে সন্দেহ নেই। সেক্ষেত্রে চিকিৎসা বিজ্ঞানে ন্যানো প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে অনেক বড় একটি ধাপ অতিক্রম করবে বিশ্ব।

Source: Daily Manab Zamin

পোস্টটি ২০৭ বার পঠিত
 ১ টি লাইক
০ টি মন্তব্য

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.