টুথপেস্ট দিয়ে আরও ৯টি দারুণ কাজ করতে পারবেন!
লিখেছেন ওসি সাহেব, আগস্ট ১০, ২০১৪ ৮:৫১ অপরাহ্ণ

টুথপেস্ট ব্যবহার করা হয় শুধু দাঁত মাজার জন্য। এর আর কী কোনো কাজ রয়েছে? অনেকেই জানেন না দাঁত মাজা ছাড়াও আরো ৯টি দারুণ কাজ করতে পারবেন টুথপেস্ট দিয়ে।
১. গোসলের পানিতে বুদবুদ : বাথটবে গোসলের পানিকে ফেনিল করতে চান। হাতে পেস্ট নিয়ে পানিতে নিয়ে দুই হাত ঘষাঘষি করলেই বুদবুদে ভরে যাবে পানি। এতে চোখ জ্বলে না।
২. নখের শক্তি বৃদ্ধি : দাঁত মাজার সময় নখে একটু পেস্ট নিয়ে ঘষা-মাজা করুন। দেখবেন নখগুলো আগের চেয়ে অনেক বেশি চকচক করছেন এবং এর স্বাস্থ্যও ভালো হয়ে যাবে।
৩. কাপড়ের কালচে দাগ গায়েব : কার্পেটে দীর্ঘদিনের কালচে দাগ পড়ে রয়েছে? ব্রাশের আগে পানি আর পেস্ট দিয়ে দাগের জায়গাটি ঘষে নিন। তার পর ব্রাশ দিয়ে ঘষুন। দেখবেন দাগ উঠে গিয়ে পরিষ্কার হয়ে যাবে। যেকোনো কাপড়ের দাগও পেস্ট দিয়ে ওঠানো যায়। তবে দাঁত অত্যাধিক সাদা করার জন্য বিশেষ টুথপেস্ট ব্যবহার করবেন না।
৪. চুল গোছাতে : চুলের জেলের মতো পদার্থ রয়েছে টুথপেস্টে। একে বলে ওয়াটার সল্যুবল পলিমার। এলোমেলো চুল গুছিয়ে নিতে যেভাবে জেল ব্যবহার করি, সেভাবেই পেস্ট ব্যবহার করে চুল পরিপাটি করে নিতে পারবেন।
৫. গহনা পরিষ্কার রাখা : সোনা, রূপা, হীরা, জহরত ইত্যাদি ঝাঁ চকচকে হয়ে যাবে টুথপেস্ট দিয়ে ধুয়ে নিলে। এসব গহনায় পেস্ট দিয়ে রাখুন সারা রাত। তার পর সকালে উঠে হালকাভাবে পরিষ্কার করে নিন। তবে মুক্তা পরিষ্কার করবেন না টুথপেস্ট দিয়ে।
৬. ইস্ত্রির ধাতুর কালো দাগ তুলতে : আয়রন করার সময় যদি ডিসটিল্ড পানিও ব্যবহার করেন, তবুও এর ফোকরগুলোতে কালো দাগ পড়ে যায়। টুথপেস্টে সিলিকা থাকে। তাই এটি দিয়ে আয়রনের ধাতব পাতটি ঘষলে এটি চকচকে হয়ে যাবে।
৭. পোকা-মাকড়ের কামড়ে শান্তি : পোকা-মাকড়ের কামড়ে জ্বালা-পোড়া কমাতে তাৎক্ষণিক টুথপেস্ট দারুণ কাজ দেয়। মশার যন্ত্রণা থেকেও মুক্তি পাবেন টুথপেস্ট ব্যবহার করে।
৮. পোড়ার জ্বালা কমাতে : আগুনে বা ইস্ত্রিতে হাত লেগে হাত পুড়ে গেলে দ্রুত সেখানে টুথপেস্ট লাগিয়ে নিন। এটি রান্নাঘরে ফার্স্ট এইড হিসেবে রেখে দিতে পারেন। সারা রাত পোড়া অংশে পেস্ট লাগিয়ে রাখলে তা প্রায় ভালো হয়ে যায়।
৯. আসবাবের দাগ তুলতে : পানি বা পানীয়র দাগ থেকে শুরু করে যেকোনো দাগ আসবাবের সৌন্দর্য নষ্ট করে দেয়। এসব স্থানে টুথপেস্ট লাগিয়ে শুনকো কিছু দিয়ে ঘষুন। এভাবে রেখে দিন না শুকানো পর্যন্ত। এর পর মুছে ফেলুন। আসবাব নতুন করে পলিশ করার আগেও একই কাজ করতে পারেন।

সূত্রঃ স্বাস্থ্য তথ্য।

Comments

comments

পোস্টটি ৩৫২ বার পঠিত
 ১ টি লাইক
৭ টি মন্তব্য