সব খালি মেয়েরা করবে তাইনা!!
লিখেছেন নাসরিন সিমা, জুন ১২, ২০১৪ ৩:৫১ অপরাহ্ণ

রাস্তায় একজন খালাম্মার সাথে সালাম বিনিময় হলো। স্নেহের আতিশয্যে তিনি আমাকে জড়িয়ে ধরলেন, আমি কী করবো! ওনার স্নেহকে কিছুক্ষণ ইতস্তত সহ সম্মান জানালাম। উনি অনেক কথা বলছিলেন, আমি শুধু প্রয়োজনবোধে হ্যা না অথবা আসলেই বলে যাচ্ছিলাম। এবার একজন মহিলাকে দেখিয়ে বললেন,
-দেখছো কী বেহায়া মেয়ে মানুষ, কি পরছে বয়সের সাথে সাথে তো আক্কেলটা বাড়ানো উচিত। আমি এই বিষয়ে কিছুই বললামনা। উনি বলছেন আমার একজন আত্মিয়া আছে, যে ছেলের জন্য পাত্রী খুঁজতেছে। তো, একদিন কথা প্রসঙ্গে সে বললো, আসলে মেয়ের অভাব নাই রাস্তায়, স্কুল কলেজে কতো মেয়ে কিন্তু বউ হিসেবে তাদেরকে বাছাই করা কঠিন। পোশাক আশাক এতো খারাপ, আর এখন প্রায় ৯০ পার্সেন্ট মেয়েই কারো না কারো সাথে প্রেম করে বেড়ায়। আমি ওনার কথাগুলো শুনেছি শুধু ওনাকে কিছুই বলিনি। পরে কথাগুলো নিয়ে ভাবছিলাম, তাতে কয়েকটি প্রশ্ন মাথায় ঘুরছিলো।
প্রথম প্রশ্ণ হলো মেয়েরা যদি প্রেম করে বেড়ায় তাহলে কাদের সাথে? ছেলেদের সাথে নিশ্চয়ই। পৃথিবীতে মেয়েদের সংখ্যা বেশী, বিশেষ করে মুসলিম কান্ট্রি গুলোতে, তাহলে ছেলেদের ক্ষেত্রে এই পার্সেন্টেন্স টা অবশ্যই হানড্রেড।

দ্বিতীয়, আপনি খুঁজে খুঁজে খুব ভালো মেয়েকে ছেলের জন্য বাছাই করলেন, কিন্তু আপনার ছেলে কী তখন বাজে পোশাক পরা মেয়েটির দিকে তাকানো পরিহার করেছে?

আপনি আপনার বৌমাকে যথাযথ পর্দা করার জন্য বলছেন টাইট ফিটিংস কাপড় পরতে নিষেধ করছেন, কিন্তু আপনার ছেলে কী পর্দা করছে? আপনার ছেলে কী শার্ট ইন করা ছেড়ে দিয়েছে?

পোস্টটি ৪২৫ বার পঠিত
 ০ টি লাইক
৪ টি মন্তব্য
৪ টি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. সমাজের রীতিটাই এমন। দুর্বলদের জন্য যত নিয়ম প্রযোজ্য। অথচ পবিত্র কোরআনে পুরুষদের পর্দার কথা আগে এসেছে।

  2. মেয়েরা কেও কেও পর্দা করেনা বলে ছেলেরা নিজদের পর্দা পুরাই ভুলে গেছে। ভালো মানুষ অবশ্য কিছু আছে, কিন্তু তা কয় জন? :(

    • কথা হলো পর্দা সকলের জন্য ফরজ। কিন্তু ছেলেদের পর্দার ক্ষেত্রে সবারই এক ধরণের শিথিল মনোভাব।

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.