মনুষ্যত্ব
লিখেছেন নাসরিন সিমা, জুলাই ৩, ২০১৪ ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ

 

পৃথিবীতে কতো পেশার মানুষ বাস করে! ভাবনার বহরটা বেশী হওয়ায় এটা নিয়েও আমি ভাবতে বসে যাই, আচ্ছা মুদির দোকানদাররা যদি এই পেশা বাদ দিয়ে দিতো তাহলে কেমন হতো? প্লিজ আপনারা আবার সেটা নিয়ে ভাববেননা যেন, আমিই এর উত্তর দিয়ে দিচ্ছি- আসলে এমনটা হবেইনা, কিন্তু এ ধরণের আবোল তাবোল চিন্তা মাঝে মাঝেই মাথায় আসে! গতকাল ভাবলাম ময়লা ওয়ালার ব্যাপারটা নিয়ে, যে আপনার আমার ঘরের সমস্ত ময়লা নিয়ে যায়, আশ্চর্যের ব্যাপার হলো একটুও নাক সিটকায় না! অথচ আমরা ময়লার সেই বিশাল গাড়ীর পাশ দিয়ে হাঁটলে নাক সিটকাই, বমিও হয়ে যায় কারো কারো। আর ওরা সেই ময়লা নিয়ে রাস্তার পরে রাস্তা হাঁটে, ভাবলাম ওরা যদি ময়লা না নিতো! আপনার ঘর দুর্গন্ধে ভরে যেতো, নয়তো আপনাকেই ছুটতে হতো ময়লার সেই ঝুড়িটা নিয়ে বেশ কিছু পথ!অথচ এই মানুষগুলোকে আমরা মূল্যায়ণ করতে জানিনা, এদের সাথে কথা পর্যন্ত ভালোভাবে বলিনা!
পাশের প্রতিবেশীর সাথে ময়লার টাকা নিয়ে ময়লা ওয়ালার কথা কাটাকাটি। এক পর্যায়ে প্রতিবেশী বলে দিলেন এই তোদের কাছে আর ময়লা দিবনা……………

কিন্তু ঘটনা অন্যরকম, আর একজন প্রতিবেশীর সাথে সেই প্রতিবেশী যোগসাজস করে দুজন একই ঝুড়িতে ময়লা দেয়া শুরু করে, এতে ময়লার বিল দুজন অর্ধেক করে দিতে পারে, ফলে প্রতিদিন ঐ বালতিতে এক্সট্রা একটা করে পলেথিনের পোটলা দেখা যায়! এই ঘটনা জানার পর আমার মুখ থেকে একটা বাক্য বের হয়েছে সেটা
হলো “ছিঃ”! ময়লা ওয়ালা ব্যাপারটা বুঝতে পেরেছিলো বলেই আর এমন করেনা। একবার ভাববেন এরা এই কাজটায় করে, সেক্ষেত্রে এদের পাওনা টাকা যদি আপনার সঞ্চয়ের হিসাবে রেখে দেন তবে আল্লাহর কাছে কী জবাব দেবেন! এমন কিছু ছলচাতুরী হরহামেশায় মানুষ করে থাকে কী লাভ এসব করে?কোন ক্লাসে যেন একটা গল্প পড়েছিলাম গল্পটার নামও মনে নেই তবে সামান্য ঘটনা মনে আছে, পাখিরা মানুষকে দো পায়া দৈত্য বলে মনে করে, আর উড়োজাহাজ হলো বিশাল একটা পাখি সেই পাখির পেটে মানুষগুলো ওঠে, আবার নামে, সেই পাখি নাকী গোল গোল বিশাল ডিমও  পাড়ে………”  মনুষ্যত্বের যে প্রলেপ মাখিয়ে মানুষ দিনের পর দিন পথ চলে, সে প্রলেপটা এতো কৃত্রিম হলেতো সত্যিই মানুষকে আর কখনোই মানুষ মনে হবেনা!

পোস্টটি ৩২৫ বার পঠিত
 ১ টি লাইক
৪ টি মন্তব্য
৪ টি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. পাখিরা মানুষকে দো পায়া দৈত্য বলে মনে করে, আর উড়োজাহাজ হলো বিশাল একটা পাখি সেই পাখির পেটে মানুষগুলো ওঠে, আবার নামে, সেই পাখি নাকি গোল গোল বিশাল ডিমও পাড়ে। স্কুলে পড়েছিলাম একটু একটু মনে আছে।আজ এসব বড় কঠিন সত্যি।

  2. মনুষ্যত্বের যে প্রলেপ মাখিয়ে মানুষ দিনের পর দিন পথ চলে, সে প্রলেপটা এতো কৃত্রিম হলেতো সত্যিই মানুষকে আর কখনোই মানুষ মনে হবেনা!
    ঠিক বলেছেন।

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.