পুরনো শত্রুতা অতঃপর…………….
লিখেছেন নাসরিন সিমা, এপ্রিল ২৪, ২০১৪ ২:২০ অপরাহ্ণ

ক্রাইম  বেড়ে চলেছে দিনের পর দিন। অপহরণ, ধর্ষণ, খুন নিত্য দিনের ব্যাপার। আজ বাস্তব একটা ঘটনা শেয়ার করছি আপনাদের কাছে। ঢাকা শহরের একটি এলাকায় সংসার পেতেছে এক দম্পতি, একজন ছেলে সন্তান তাদের ভালোবাসার নিদর্শণ। খুব সুখেই  কাটছিলো  জীবন।  দিনের পর দিন সুরভী(ছদ্মনাম) অপেক্ষা করেছে তার হাজব্যান্ডের (সিহাব- ছদ্মনাম) জন্য। হঠাৎই ঘটে গেছে এক বিপর্যয়, যা সুখের সংসারটিকে ভেঙ্গে দিয়েছে, নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছে।

একদিন, কলিং বেলের শব্দ শুনে সুরভী ছেলেকে সাথে নিয়েই দরোজা খুলতে যায়, আর ওপার থেকে তাড়া আসে এতো দেরী করছো কেন দ্রুত খোল। সুরভী দ্রুতই খোলে, মুখের দিকে না তাকিয়েই, খুলছিতো, এতো তাড়া কেন? কথাটা শেষ করে মুখের দিকে তাকিয়ে হা হয়ে যায় সুরভীর মুখ, শার্ট, প্যান্ট, ব্যাগ সবটায় সিহাবের, শারীরিক গড়ণও সিহাবের মতোই, কিন্তু লোকটি সিহাব না। চিৎকার দিতে গিয়ে থেমে যায় সুরভী কারণ লোকটি ওর কলিজার টুকরাকে ক্লোরোফরম মিশ্রিত রুমাল দিয়ে চেপে ধরেছে। বাচ্চাটাকে ফেলে এবার সুরভীকে জাপটে ধরলে সুরভী চিৎকার দেয় সাথে সাথে লোকটি ওকেও  ক্লোরোফরম দিয়ে নাক চেপে সেন্সলেস করে দেয়।  তারপর যা হবার, সুরভীকে ধর্ষণ করে ক্ষতবিক্ষত করে দেয়।

এর পর… পাশের এক প্রতিবেশী এসে সুরভীর দরোজায় নক করে, লোকটি এখনও পালাতে পারেনি, কিন্তু দরোজাও খুলছেনা, অনেক পরে লোকটি দরোজা খুলেই পালিয়ে যায়।  আর থানায় গিয়ে সুরভী সিহাবের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামা করে আসে।

সিহাব বেঁচে আছে, সুরভীও বেঁচে আছে, কিন্তু দুজনই অন্ধকার কারাগারে। কী ধরণের শত্রুতা ছিলো তা আজও পরিষ্কার নয়।

এভাবেই দিনের পর দিন নানা ধরণের অপরাধ বেড়ে চলেছে, কিছু প্রকাশ হয় কছু থেকে যায় অজানা, আপনি ভাবতে পারছেন আপনার সাথে এমনটা ঘটলে আপনি কী করবেন? ঘটনাটা জনার পর ভয়ে আমি চুপসে ছিলাম, মনে হচ্ছিলো সত্যিই যদি এমনটা ঘটে! সাইমুম সিরিজে ক্লোন সংক্রান্ত বিষয়গুলো জেনে  আমি খুব ভয় করতাম, সত্যিই এরকম কিছু হওয়া বিচিত্র নয়। আসুন আমরা এসব অপরাধের বিরুদ্ধে কলম ধরি, এসব অপরাধীদের চিহ্নিত করি। আমাদর ব্লগ “উইমেন এক্সপ্রেসের” মাধ্যমে এইসব অপরাধকে না বলি। মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হোন।

পোস্টটি ১১৯২ বার পঠিত
 ০ টি লাইক
২ টি মন্তব্য
২ টি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. অপরাধগুলো সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে ঢুকে পরেছে তাই আমাদেরই এগিয়ে আসতে হবে নচেৎ এইগুলা আবার আমদেরই এক সময় কুড়ে কুড়ে খাবে :(

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.