বাইতুল্লাহ ‘র পথে…. (২য় পর্ব)
লিখেছেন নাসরিন সিমা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৭ ৪:২০ অপরাহ্ণ

ছুটে চলেছে আমাদের গাড়ি, তালবিয়ার গুন্জণে মুখরিত পুরো পাশ ! হোটেলে যখন ঢুকি তখন সময় আনুমানিক সাড়ে নয় টার মতো । উমরাহের নিয়তে থাকায় ভালোভাবে ফ্রেশ না হয়ে অজু করে সকালের নাস্তা করা হলো । রুমমেইট কিছুদিনের জন্য একজনই। কিছুদিন পরে আরো দু ‘জন আসবেন। উনি আমার চেয়ে প্রায় দশ বছরের বড়! কাছাকাছি বয়স না হলে নিজের চলাফেরা নিয়ে উদ্বিগ্ন থাকতে হয়, কোন ভুল করে বসি কি না! তবে আল্লাহর রহমতে তাকে ফ্রেন্ডলি মনোভাবের পেয়েছি, কিন্তু কথা শুরু করলে সংক্ষিপ্ত করতেন না! খুব সরল মনের মানুষ, আর উত্তরবঙ্গের হওয়ায় ভালো লেগেছে। উনি জয়পুরহাটের। যাই হোক সবাই বাইরে বের হলাম হোটেলের গেইটে! তালবিয়া পাঠ করতে করতে এগুচ্ছি……..


বেশিরভাগই মুরুব্বী মানুষ (মহিলা) একজন আমার সমবয়সী হলেও শাশুড়ির অসুস্থতায় এগুতে পারছেননা, ভাইদের সবাই এগিয়ে যাচ্ছেন আমার সংগী আমাকে ধীরে যেতে দেখে পাশাপাশি এসে দ্রুত যাওয়ার কথা বললেন। কিন্তু ইতস্তত বোধ করেছিলাম খালাম্মাদেরকে পেছনে ফেলে যেতে।

মাতাফে গিয়ে কেমন অদ্ভুত অনুভূতি হচ্ছিলো! শুধু মনে হলো আর কোন আড়াল নেই যেন, সব গুণাহ মাফ পাওয়ার এখনই সময়, কিন্তু কিভাবে শুরু করবো সেই ভাষাটুকুও হারিয়ে ফেলেছিলাম! তখন মানুষ কম ছিলো এক একটা তাওয়াফে মাত্র পাচ মিনিট করে সময় লেগেছিল! এরপর ইচ্ছে করেই আমরা গ্রুপ থেকে আলাদা হয়ে গেলাম! তাওয়াফ নামের এই খুব প্রিয় কাজটা মনের গভীরে নেশা তৈরী করে দিল নিমিষেই! তাওয়াফ শেষ হলে দু ‘রাকাত নফল নামাজ আদায় করা হলো।

এরপর জমজমের পানি পানের পালা, সেখানে বরফের মতো ঠান্ডা, পানি এক সাইডে একটা বা দুটা নরমাল পানির ট্যাপ, আর বাকীগুলো ঠান্ডা! পুরো বায়তুল্লাহে অনেক জায়গায় পানির ব্যবস্থা রয়েছে! সেখানে কর্তব্যরত পুলিশ বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করছে কেউ কোন অনিয়ম করে ফেললে যথেষ্ট সচেতন ভাবে সম্বোধন করে, ইয়া হাজ্জী! ইয়া হাজ্জী! তাদের সাথে ইংলিশে কথা বলে আপনি কোনরূপ উপকার পাবেন না! আরবীর পরে ওরা উর্দু আর হিন্দি ভালো বোঝে। এরপর যার যার মতো চাওয়ার পালা, পানি পানের সময় আবার গ্রুপের সাথে মিলে গেলাম। পরবর্তীতে সায়ী করা হলো। সায়ি করতে গিয়ে সমস্যায় পড়লাম! ঐ স্থানটি আরো ঠান্ডা আর খালি পা হওয়ায় সব ঠান্ডা পায়েই যেন জমে যাচ্ছিল! সায়ি শেষ হলে চুল কাটানো এরপর হোটেলে গিয়ে ফ্রেশ হলাম। এর মধ্যে যোহরের সময় হয়েছিল!
চলবে……

প্রথম পর্ব

পোস্টটি ৭৯ বার পঠিত
 ৩ টি লাইক
৪ টি মন্তব্য

Leave a Reply

4 Comments on "বাইতুল্লাহ ‘র পথে…. (২য় পর্ব)"

Notify of
Sort by:   newest | oldest | most voted
লাল নীল বেগুনী
Member

ভালো লাগলো।

আলোকিত প্রদীপ
Member

হিংসা জাগানিয়া পোস্ট। দোয়া করবেন যেন বায়তুল্লাহ দেখার সৌভাগ্য হয়।

রৌদ্রের গান
Member

পোস্ট পড়ি আর স্বপ্ন দেখি…

Ballpoint
Member

চমৎকার বর্ণণা। এবার আমাদের জন্য ঝটপট পরের পর্বটা লিখে ফেলেন।

wpDiscuz