বেদনা মধুর হয়ে যায়
লিখেছেন সাফওয়ানা জেরিন, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৪ ১১:১৩ পূর্বাহ্ণ

kishori

বেদনা মধুর হয়ে যায় তুমি যদি দাও………
সিনেমা আর নাটকে প্রেম ভালোবাসা আর রোমান্স নিয়ে ব্যাপক একটা ইলিউশন তৈরি করে দেওয়া হয়। কাল একটা ইংলিশ ব্লগে এই সংক্রান্ত একটা রিসার্চ আর্টিকেল দেখলাম। প্রায় ১৫ টি বিষয়ে ভুল ধারনা দেওয়া হয় রোমান্স বা ভালোবাসা সম্পর্কে। বাস্তবে, ভালোবাসার মানুষের দেওয়া বেদনা কখনোই মধুর মনে হয়না, বরং আর ১০ জনের দেওয়া কষ্টের চেয়ে অনেক বেশীই বলে মনে হয়। ভালোবাসার মানুষের দেওয়া ১ ডিগ্রি মাত্রার কষ্ট ১০০ ডিগ্রি মনে হবে, যা অন্য কেউ দিলে হয়তো এতো কষ্ট লাগবে না!
এটা খুব স্বাভাবিক একটা বিষয়। কারন, আশা যেখানেই বেশী, আশার অপমৃত্যু বা আশার গায়ে বিন্দুমাত্র চোট ও সহ্য করা সেখানে কঠিন। আর সেই মানুষগুলোই যখন ছোট ছোট কথায় কাজে কষ্ট দেয়, সেই কষ্ট সহ্য করা কঠিন।
আর বিভিন্ন সময়েই বাস্তবে আমরা দেখেছি, ভালোবাসার মানুষের দেওয়া বেদনা সহ্য করতে না পেরে অনেকেই মৃত্যুকে আলিঙ্গন করেছেন। ডক্টর শামরুখ কিংবা অভিনেত্রী লোপা তার জলজ্যান্ত উদাহরণ হতে পারে।
সিনেমা কিংবা গান আমাদেরকে অনেক আবেগি হতে শেখায়, কখনো কখনো ভালোবাসার মানুষকে ঈশ্বর সমান প্রতিপন্ন ও করে, অনেক হিন্দি গানে এমন মিনিং ও শোনা যায়! অথচ, ভালোবাসার মানুষ ও নিতান্তই মানুষ। মানুষের সীমাবদ্ধতা, ইন্দ্রিয়পরায়ণতা , স্বার্থপরতা, আত্মকেন্দ্রিকতা থেকে মুক্ত নয়। বরং অনেক সময় আপন মানুষদের প্রতিই তাদের অবহেলা সীমাহীন হয়ে যায়। সুতরাং, বেদনা কখনোই মধুর না, বিশেষত যে বেদনা ভালোবাসার মানুষটি নির্দ্বিধায় দেয়।

পোস্টটি ২১৫৬ বার পঠিত
 ০ টি লাইক
০ টি মন্তব্য

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.