ন্যাচারাল সুন্দরই সুন্দর
লিখেছেন সাফওয়ানা জেরিন, আগস্ট ৯, ২০১৬ ১:৫২ অপরাহ্ণ
XFVGbFR

d10d11d4ef231cb67029cf9b1885cde1images

একটি গবেষণার কাজে একজনকে প্রশ্ন করা হল- সৌন্দর্য বলতে কী বুঝেন? তিনি বললেন – ন্যাচারাল সুন্দরই সুন্দর। উত্তর শুনে একটু হাসি পেলো গবেষকের। যেমন?

উনি একটু বুঝিয়ে বললেন- যেমন একটু লম্বা হবে, একটু ফর্সা হবে, দাঁত উঁচা হবেনা, চোখ ট্যাড়া কিংবা ছোট হবেনা, নাক বোঁচা হবেনা, ভ্রু মোটা হবেনা, চুল কোঁকড়া হবেনা, গায়ের রঙ শ্যামলা হবেনা, কোমর বারবি ডলের মতো সরু হবে, হাতের আঙ্গুল লম্বা হবে, গলায় বিউটি নেক থাকলে মোটামুটি সুন্দরী বলা যায় আর কী!

   আপনি যেসব না থাকাকে ন্যাচারাল সুন্দর বললেন তার সবকিছুই তো দেখছি ন্যাচারাল। গায়ের রঙ শ্যামলা কালো এটা কেউ চাইলেই বানাতে তো পারেনা। এটা প্রকৃতির দান। আর বাদবাকি বৈশিষ্ট্যের সাদৃশ্য বৈসাদৃশ্য দুটাই প্রাকৃতিক। কেউ তো অপারেশন করে চোখ ছোট করে নেয়না। তাহলে সেটাই তার জন্য ন্যাচারাল কী বলেন?

   ঐ তো মানে ন্যাচারাল সবই সুন্দর। যে গুলো বললাম এগুলো তো কস্মেটিক সার্জারি করে সুন্দর করতে বলিনি।

   ন্যাচারাল সবই যদি সুন্দর হয়, তাহলে আফ্রিকার নিগ্রো মানুষটাকেও অসুন্দর বলা যায় না। সব মানুষই একদম মৌলিক জৈবিক চাহিদার প্রাকৃতিক ফলাফল। তাইনা?

   ইয়ে মানে ইয়ে……

   আপনি বলেন তো গোলাপ সুন্দর নাকি রজনীগন্ধা সুন্দর? লাল চুল সুন্দর নাকি কালো চুল সুন্দর ? দুটাই ন্যাচারাল। যদি আর্টিফিশিয়াল সব কিছুই অসুন্দর হয়, তাহলে চেহারার উপরের এই প্রলেপ অসুন্দর, চোখের এই নকল আই ল্যাশ একটা ধোঁকা আর কস্মেটিক সার্জারি করা এই বারবি ডল কোমর ও আর্টিফিশিয়াল। অসুন্দর। অযৌক্তিক।

   তাহলে কীভাবে বুঝবো কেউ সুন্দর নাকি অসুন্দর।

   সৌন্দর্য আসলে মানুষের মনে। তাও যদি একান্তই চামড়া বা গড়ন থেকে সুন্দর অসুন্দর বুঝতে চান তাহলে যার দিকে তাকাবেন শুধু তাকে দেখেই ভেবে দেখবেন, তার মধ্যে কী সুন্দর আছে। তার চেহারায় কী সারল্য, কী একটা মায়া আছে, অন্য কোন তুলনা ছাড়াই , কোন রকম মাপকাঠি ছাড়াই। দেখবেন ন্যাচারাল সব কিছুই সুন্দর।

   তাহলে এতদিন কী বুঝলাম!

 

   এতদিন যা বুঝছেন তা কেউ না কেউ তো বুঝিয়েছেই। বুঝিয়েছে ঐ ফেয়ার অ্যান্ড লাভলির বিজ্ঞাপন, বুঝিয়েছে ঐ লাক্সের বিল বোর্ড, বুঝিয়েছে ঐ বারবি ব্যবসায়ীরা আড় শো বিজের নায়িকারা। পুঁজিবাদীদের চক্রবৃদ্ধি হারে বাড়া সুন্দরী চাই।চল্লিশে পা দেওয়া ঐ নায়িকাকেই  ওরা সুন্দর দেখেনা আর। নায়িকাদের সুন্দর দেহ হল মিন্স অফ প্রোডাকশন, বা টাকা বানানোর মেশিন। পুঁজিবাদীরা বা সিনেমা বনিতারা নাহয় ব্যবসার জন্য সুন্দরের দাসত্ব করে। আপনি কার জন্য করেন? ওদের দেখানো মনতত্তে ওদের শেখানো লালসার দাসত্ব করেন। যদি পুঁজিবাদীদের মতো আপনিও চক্রবৃদ্ধি কথিত সুন্দর কিনে আনেন, তাহলে আপনার ব্যবসাকে ঘরোয়া ব্যবসা বললে কী বেশি দোষ হবে?   

পোস্টটি ৭৮৮ বার পঠিত
 ২ টি লাইক
৩ টি মন্তব্য
৩ টি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. স্বপ্ন দেখি এমন এক সমাজের যেখানে শারীরিক সৌন্দর্য নয় মানসিক সৌন্দর্যকে পূজনীয় দৃষ্টিতে দেখা হবে…

  2. হয়ত কখনো সুন্দরের আসল মানে খুঁজে পাবে মানুষ …
    হয়ত…..

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.