ছবি প্রিন্টে সাবধান!
লিখেছেন FM97, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৫ ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
printing

printing

পরিস্থিতি কখন কেমন হয় বলা যায় না, তবুও সাবধানতা ও বিচক্ষণতা অবলম্বন করা উচিত। যেমন- হঠাৎ করে কোথাও ছবি জমা দিতে হবে, অথচ আপনার কাছে একটাও ছবির হার্ডকপি নেই, এদিকে কোনো স্টুডিও খোলা নেই যে- আপনি ছবি তুলে প্রিন্ট করাবেন, তবে সাথে আছে আপনার ক্যামেরা মোবাইল। কাজেই আপনি চাইবেন সেটায় ছবি তুলে প্রিন্টারের দোকান থেকে প্রিন্ট করিয়ে ঝামেলা চুকিয়ে নিতে। তবে, এমন পরিস্থিতি না আসুক এটাই কামনা করি- বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে, কারণ-

 

স্বাভাবিকভাবে নিজস্ব মোবাইলে মানুষের ব্যক্তিগত তথা পারিবারিক ছবি থাকে, অনেক ছবি আবার হিজাব ছাড়াও থাকে। তো জরুরি ভিত্তিতে মোবাইলে ছবি তুলে কম্পিউটারের দোকানে প্রিন্ট করতে দিলে, দুষ্ট দোকানদার ডাটা ক্যাবলের মাধ্যমে শুধু প্রিন্ট যোগ্য ছবিটা না নিয়ে ক্যামেরার সব ছবিগুলো তার কম্পিউটারে নামিয়ে নেয়। যেটা অনেক সময় ব্যক্তির অগোচরে করা হয়। আর এসব ছবিগুলো নিয়ে তারা বিভিন্ন নোংরা সাইটে এটাচ করে নিষিদ্ধ ওয়েবসাইট বানিয়ে বিক্রির সুযোগ পায়।

 

অভিজ্ঞতার আলোকে বলছি- সম্প্রতি এমনই এক পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি। মোবাইলে ছবি তুলে প্রিন্ট করতে দিলে দুষ্ট লোকটা আমার ক্যামেরায় থাকা সব ছবি কপি করে নিজের ডেস্কটপ এ ফোল্ডার করে রাখে। আমি উনাকে ডিলিট করতে বললেও কেমন জানি গরিমসি করা শুরু করে। ফলে ব্যাপারটা আঁচ করতে পারি। আল্লাহ’র নাম নিয়ে ফন্দি আঁটা শুরু করলাম। যেমনই উনি আমার পাসপোর্ট সাইজ ছবি প্রিন্ট করে দিলেন। ওমনি ব্যাগ থেকে ৫০০ টাকার নোট বের করে উনাকে ভাংতি দিতে বললাম (৫০ টাকা খুচরা ছিলো না), কিন্তু তাতেও উনি উঠতে চাচ্ছেন না, এমন সময় উনি পাশে তাকাতেই আলহামদুলিল্লা কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে তাড়াতাড়ি টেবিলের মাউসটা হাতে নিয়ে উনার ডেস্কটপ এর সেই ফোল্ডারটার ওপর ক্লিক করে Shift Delete একসাথে চেপে, Enter এ চাপ দিলাম। ফলে পুরো ফোল্ডারটা পুরোপুরি ডিলিট হয়ে গেলো। কাজ করে সাথে সাথে সটকে পড়ে, অন্য দোকান থেকে উনাকে ভাংতি এনে উনার টেবিলে রেখে লম্বা পায়ে হাঁটা দিলাম।

 

 
তাই সবাইকে সতর্ক করার জন্য বলা, বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে টিপস হলো- যেহেতু যেকোনো কাজে পার্সপোর্ট সাইজ ছবি লাগে। তাই আপনার পার্সপোর্ট সাইজ ছবির একটা সফটকপি সবসময় পেনড্রাইভে রাখুন, আর পেনড্রাইভ ব্যাগে রাখুন। যাতে কখনো ছবি প্রিন্ট করতে হলে, শুধু পেনড্রাইভ থেকেই যাতে চিহ্নিত ছবিটা দেয়া যায়- আর ওরাও আপনার ক্যামেরার সব ছবি নেয়ার সুযোগ না পায়। আর অনেক সময় বিশেষ করে ভিসার ক্ষেত্রে (আপনি যদি চশমা পড়েন) চশমা ছাড়া ছবি চায়- তাই চশমা ছাড়া ছবির কপিও পেনড্রাইভে রাখতে পারেন।

পোস্টটি ৪৩৪ বার পঠিত
 ০ টি লাইক
১ টি মন্তব্য
একটি মন্তব্য করা হয়েছে
  1. ইয়া আল্লাহ! কি ভয়াবহ অবস্থা! http://womenexpress.net/blog/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_scratch.gif আপনি তো তবুও পেরেছেন কৌশলী হতে কিন্তু সবাই তো পারে না! http://womenexpress.net/blog/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_cry.gif

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.